1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
কেমন ছিল কমলগঞ্জে আজকের দিনটি - মুক্তকথা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১২:৫০ অপরাহ্ন

কেমন ছিল কমলগঞ্জে আজকের দিনটি

কমলগঞ্জ(মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি॥
  • প্রকাশকাল : বুধবার, ২১ জুন, ২০২৩
  • ৪৫৯ পড়া হয়েছে

সিলেট সিটি নির্বাচনের দিন

কমলগঞ্জের গ্রামের বাড়িতে এসে কোরবানির পশু কিনেছেন সিটি মেয়র আরিফুল

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের দুই বারের নির্বাচিত মেয়র ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আরিফুল হক চৌধুরী সিলেট সিটি নির্বাচনের ভোটের দিন গ্রামের বাড়ি মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সীবাজার ইউনিয়নের উবাহাটা গ্রামে ঘুরতে এসেছেন। দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে সিলেট সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করায় বুধবার সকালে গ্রামের বাড়িতে আসেন তিনি। বিকেলে ৪ টায় উপজেলার শমশেরনগর বাজার থেকে কোরবানির জন্য প্রায় ২০ টি ছাগল ক্রয় করেছেন তিনি।

আরিফুল হকের নিকট আত্মীয়রা জানান, মেয়র আরিফুল হক নির্বাচনে অংশ না নেওয়ায় তিনি এখনো স্বপদে বহাল। যেহেতু তাঁর দল বিএনপি নির্বাচন বর্জন করেছে এবং তিনিও প্রার্থী হননি, তাই নির্বাচনের দিন তিনি হঠাৎই সপরিবার দাদার বাড়ি বেড়ানোর পরিকল্পনা করেন। এর অংশ হিসেবেই তিনি বুধবার কমলগঞ্জ উপজেলার উবাহাটা গ্রামে বেড়াতে এসেছেন। মেয়রের সঙ্গে তাঁর স্ত্রী শ্যামা হক ও তাঁর ব্যক্তিগত তিনজন কর্মকর্তা আছেন।

সিলেট সিটি মেয়র বিএনপি নেতা আরিফুল হক চৌধুরী জানান, অনেক দিন ধরে গ্রামের বাড়িতে আসা হয়নি। আত্মীয় স্বজনরা আম কাঁঠাল খাওয়ার দাওয়াত দিয়েছেন। একটু সময় পেয়েছি এ জন্য আসলাম। একই সাথে বিকেলে কিছু সময় পাওয়ায় কোরবানির জন্য কিছু ছাগল ক্রয় করেছি। তিনি আরও বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে সিলেট সিটি নির্বাচনে তিনি অংশগ্রহণ করেননি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের নির্দেশনা মেনে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ২ জুন সিটি নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শুরুর পর থেকে মেয়র আরিফুল হক সিলেটেই অবস্থান করছিলেন। সিটি করপোরেশনের নানা কর্মসূচিতে তিনি অংশ নিলেও নির্বাচন নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথা বলেননি। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আরিফুল হক সিলেট শহর ছেড়েছেন।

 

কমলগঞ্জে ডিবির অভিযানে ২৩ বস্তা ভারতীয় চিনি উদ্ধার

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) বিশেষ অভিযানে অবৈধভাবে আমদানিকৃত ৫০ কেজি ভারতীয় চিনি উদ্ধার করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার (২০ জুন) রাতে উপজেলার পতনউষার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০ কেজির ২৩ বস্তা ভারতীয় চিনি আটক করা হয়। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই আজিজুর রহমান নাঈমসহ ডিবি ডিব পুলিশের একটি দল কমলগঞ্জ উপজেলার পতনঊষার ইউনিয়নের শহীদনগর বাজারস্থ পল্লীবিদ্যুত সমিতির অভিযোগ কেন্দ্রের বিপরীত পাশে হিরণ মিয়ার মালিকাধীন ভাড়া দোকানে অভিযান পরিচালনা করে।

এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৫০ কেজি ওজনের ভারতীয় একটি কোম্পানির নামীয় ১৫ বস্তা চিনি এবং বাংলাদেশী তীর ও সিটি সুপার ইন্ডাস্ট্রিজ লিঃ এর মোড়ক সংযুক্ত  ৮ বস্তা চিনি জব্দ করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অবৈধভাবে ভারতীয় চিনি আমদানিকারক দুজন ব্যক্তি পালিয়ে যায়।

জানা যায়, চিনি পাচারকারী এই চক্রের কয়েকজন মিলে ভারত থেকে চোরাই পথে কমদামে ভারতীয় চিনি আনে। পরবর্তীতে এই চিনি ভারতীয় বস্তা থেকে বাংলাদেশ কোম্পানির চিনির বস্তায় ভর্তি করে বাংলাদেশী চিনি হিসেবে বিক্রি করে।

কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সঞ্জয় চক্রবর্তী জানান, চোরাচালানের মাধ্যমে শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে ভারতীয় পণ্য বাংলাদেশে আমদানি করার অপরাধে পলাতক দুইজনসহ অজ্ঞাত নামা ২/৩ জনের বিরুদ্ধে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ (বি) ধারায় কমলগঞ্জ থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

 

কমলগঞ্জে ওয়েব ফাউন্ডেশনের ২দিনব্যাপী রিফ্রেশার প্রশিক্ষণ উদ্বোধন

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়ন ও বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় সক্রিয় অংশগ্রহণ প্রকল্পের আওতায় ওয়েব ফাউন্ডেশনের এডভোকেসি নেটওয়ার্ক সদস্যদের জন্য মানবাধিকার, গণতন্ত্র, সুশাসন, নারীর ক্ষমতায়ন ও এডভোকেসি বিষয়ক ২ দিনব্যাপী রিফ্রেশার প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার (২১ জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা পরিষদের হলরুমে এই প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম।

 

 

ওয়েব ফাউন্ডেশনের কমলগঞ্জ এডভোকেসি নেটওয়ার্ক কমিটির সভাপতি মি: জিডিশন প্রধান সুচিয়াং এর সভাপতিত্বে ও সম্পাদক সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ এর সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণ প্রদান করেন ওয়েভ ফাউন্ডেশন সিলেট বিভাগীয় ফেসিলিটেটর মো: শাহজাহান। এতে ওয়েব ফাউন্ডেশনের কমলগঞ্জ এডভোকেসি নেটওয়ার্ক কমিটির ২৫ জন সদস্য অংশগ্রহণ করেন।
প্রশিক্ষণ উদ্বোধনকালে কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম বলেন, কাউকে বাদ দিয়ে দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাই পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করছেন। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে সবাইকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। লিঙ্গ বৈষম্যের সুযোগ নেই। স্মার্ট বাংলাদেশ গঠনে সকলের কম্পিউটার ও ডিজিটাল প্রযুক্তি জানা আমাদের জন্য অত্যাবশ্যকীয়।

প্রশিক্ষক ও মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়েব ফাউন্ডেশনের সিলেট বিভাগের সমন্বয়কারী মো. শাহজাহান।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT