1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
আজই কি শেষ সাধারণতন্ত্র দিবস প্রণব বাবুর ? - মুক্তকথা
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন

আজই কি শেষ সাধারণতন্ত্র দিবস প্রণব বাবুর ?

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০১৭
  • ৮০৫ পড়া হয়েছে

নয়াদিল্লি, ২৫ জানুয়ারি: রাষ্ট্রপতি হিসাবে আজই কি শেষ সাধারণতন্ত্র দিবস প্রণবের, জোর জল্পনা দিল্লির দরবারে। দেশের ‘সর্বাধিনায়ক’ হিসাবে এবারের সাধারণতন্ত্র দিবসই কি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের শেষ ‘স্যালুট’ গ্রহণ? আগামীকাল দেশের ৬৮তম সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রাক্কালে এমন প্রশ্ন এবং কিছু জল্পনাও শোনা যাচ্ছে ভারতের রাজনৈতিক মহলে। প্রশ্ন যদি প্রণববাবুর ভবিষ্যৎ নিয়ে হয়, তাহলে জল্পনা ছিল, রাষ্ট্রপতি কে হতে পারেন? কাকে বিজেপি-এনডিএ’র প্রার্থী করবেন নরেন্দ্র মোদি? তাঁর রাজনৈতিক ‘গুরু’ লালকৃষ্ণ আদবানি না রাজনৈতিক বন্ধু রাজনাথ সিং? নাকি একেবারে আড়ালে আছেন এমন কোনও ব্যক্তিত্বকে আস্তিন থেকে বের করবেন মোদি? তিনি মুলায়ম সিং যাদব হবেন না তো। উত্তরপ্রদেশসহ পাঁচ রাজ্যের ফলাফলের পরেই এ ব্যাপারে নড়াচড়া শুরু হবে বলে দিল্লির দরবারে খবর। কেবল রাষ্ট্রপতিই নন। আগামী আগস্ট মাসে উপ-রাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারির সময়সীমাও শেষ হচ্ছে।

কেবল রাষ্ট্রপতিই নন। আগামী আগস্ট মাসে উপরাষ্ট্রপতি হামিদ আনসারির সময়সীমাও শেষ হচ্ছে। তাই তাঁর জায়গায় কে আসবেন, তা নিয়েও রাজনৈতিক দলগুলির মধ্যে চর্চা শুরু হয়েছে। এ ব্যাপারে বিজেপির প্রাক্তন সভাপতি তথা বর্তমান কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বেঙ্কাইয়া নাইডুর নাম শোনা যাচ্ছে। বিহারের এমপি হুকুম নারায়ণ যাদবের নামও শাসকদলের চর্চার মধ্যে রয়েছে বলে খবর। বেঙ্কাইয়া নাইডুর অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ সরকারি এক আমলা এদিন বলেন, এই সম্ভাবনার বিষয়টি খারিজও করছি না। আবার সরকারিভাবে স্বীকারও করছি না।

প্রণব মুখোপাধ্যায় দ্বিতীয়বার রাষ্ট্রপতি হলে দেশের সব রাজনৈতিক দলের বেশিরভাগ এমপিরই কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু প্রণববাবুর জন্য সরকার যেভাবে অবসরকালীন আবাসের ব্যবস্থা নিয়ে তোড়জোড় শুরু করেছে, তাতে পরোক্ষে নরেন্দ্র মোদি একপ্রকার স্পষ্ট করে দিচ্ছেন তাঁকে আর রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী করতে চান না। অন্তত রাজনৈতিক মহলের সেরকমই মত। রাষ্ট্রপতি অবসর নেওয়ার পর দেশের যেকোনও জায়গায় সরকারি বাংলো পান। আজীবন বিনামূল্যে মেলে বিদ্যুৎ, জল, টেলিফোনের মতো কিছু সুবিধা। আগামী ২৫ জুলাই রাষ্ট্রপতি হিসাবে প্রণববাবুর সময়কাল শেষ হচ্ছে। কিন্তু এখন থেকেই মোদি সরকার তাঁর জন্য অবসরকালীন উপযুক্ত বাংলো দেখা শুরু করেছে। এ ব্যাপারে সরকারের একেবারে শীর্ষ মহল থেকে কেন্দ্রীয় নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের কাছে নির্দেশ গিয়েছে। সেইমতো মন্ত্রকের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসাররা বর্তমানে রাষ্ট্রপতির সচিবালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে নয়াদিল্লির লুটিয়েনস জোনেই উপযুক্ত বাংলো দেখা শুরু করেছেন। ৩৪, এ পি জে আবদুল কালাম (আগের ঔরঙ্গজেব রোডে) রোডের বাংলোটি প্রাথমিকভাবে পছন্দও হয়েছিল। ওই বাড়িতে লোকসভার প্রয়াত স্পিকার পূর্ণ আজিটক সাংমা থাকতেন। এখন থাকেন তাঁর ছেলে লোকসভার এমপি কণার্ড সাংমা। কিন্তু এখন ওই বাংলোটি পছন্দের তালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন প্রণববাবু। বদলে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এ পি জে আবদুল কালাম যে বাড়িতে থাকতেন, ১১ হাজার ৭৭৬ বর্গফুট এলাকার লাইব্রেরিসমেত ওই বাড়িটি প্রণববাবুর পরিবার এবং সচিবালয়ের পছন্দ হয়েছে। ওই বাংলোয় এখন কেন্দ্রীয় পর্যটন এবং সংস্কৃতিমন্ত্রী মহেশ শর্মা থাকেন। জুলাই মাসের আগে তাঁকে বাড়িটি খালি করে দিতে বলা হয়েছে। তাই এখনও পর্যন্ত যা কেন্দ্রের শাসক দলের যা গতিবিধি, তাতে প্রণববাবুকে দ্বিতীয়বার রাষ্ট্রপতি করা হচ্ছে না। যদিও শেষ মুহূর্তে তাঁর মতো বিরোধহীন প্রার্থী মোদি আর কাউকে পাবেন কি? লালকৃষ্ণ আদবানি রাষ্ট্রপতি হলে কংগ্রেস আপত্তি তুলবে ঠিকই। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়সহ বেশিরভাগ রাজনৈতিক দলের সমর্থন পেতে বিজেপির কোনও সমস্যা হবে না। কিন্তু বাধ সাধছে তাঁর বয়স। গত ৮ নভেম্বর ৮৯ বছর পার করেছেন আদবানি। অন্যদিকে, আগামী ১০ জুলাই ৬৬ বছরে পড়বেন রাজনাথ সিং। জুলাই মাসেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন হবে। আর মুলায়ম সিং যাদবের জল্পনায় তো কোনও অঙ্কই এখন পর্যন্ত পরিষ্কার হচ্ছে না।
আবার অন্যদিক থেকে দেখতে গেলে, প্রণববাবুর বয়স এখন ৮১ বছর। তিনি চিরকালই দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণণকে খানিকটা অনুসরণ করেন। আর রাধাকৃষ্ণণ একবারই রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন। ১৯৬২ থেকে ১৯৬৭ সাল।

রাষ্ট্রপতির সময়সীমা শেষ হয়ে যাচ্ছে এমনই ধারণা থেকে এ খবরটি প্রকাশ করেছে ভারতের বর্তমান

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT