1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
গুপ্তচরদের হ্ত্যার মধ্য দিয়ে চীনারা সিআইএ-র গুপ্তচরীকে আঁতুর বানিয়ে দিয়েছে - মুক্তকথা
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ন

গুপ্তচরদের হ্ত্যার মধ্য দিয়ে চীনারা সিআইএ-র গুপ্তচরীকে আঁতুর বানিয়ে দিয়েছে

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : শনিবার, ২০ মে, ২০১৭
  • ২৯৯ পড়া হয়েছে

হারুনূর রশীদ।।

নিউইয়র্ক টাইম থেকে অনুদিত।। চীনদেশে মার্কিনীদের গুপ্তরবৃত্তির লৌহজাল ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে। চৈনিক সরকার তাদের দেশে খুব নিয়ন্ত্রিতভাবে মার্কিনীদের সিআইএ-র গুপ্তচরবৃত্তির পেছনে লেগেছিল সেই ২০১০সাল থেকে। সেই থেকে শুরু করে দু’বছরের মধ্যে আমেরিকার একডজনেরও বেশী গুপ্তচরকে হয় হত্যা নয়তো জেলে পুরেছে। পরণতিতে আমেরিকানদের গোপন সংবাদ সংগ্রহের বলতে গেলে কোমড় ভেঙ্গে দিয়েছে।
গুপ্তচর বৃত্তিতে নিয়োজিত বর্তমান ও পুরানো কর্মকর্তাগন এমনই মত প্রকাশ করে বলেছেন গোপন সংবাদ সংগ্রহের নিয়মনীতির সকল কিছু ভঙ্গ করেছে চীনারা বিগত ও চলতি দশকে। ওয়াশিংটনের গুপ্তচরবৃত্তি ও তার নিয়মকানুনের নজরদারী এজেন্সিগুলো কোমড়ভাঙ্গা হয়ে তাদের পতন দেখে যাচ্ছে। তবে এ নিয়ে আমেরিকানদের হয়ে যারা আইনানুগ খোঁজ-খবর রাখেন তাদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে ভাগাভাগি আছে। একপক্ষ মনে করেন, আমেরিকার গুপ্তচরদের মাঝেই কিছু আছে যারা আমেরিকার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। অন্য পক্ষ মনে করেন, বিদেশী গুপ্তচরদের সাথে গোপন যোগাযোগ ও সংবাদ সংগ্রহের আমেরিকানদের যে কায়দা রয়েছে তা চীনারা জেনে নিয়ে কাজে লাগিয়েছে। বছরের পর বছর ধরে আমেরিকানদের এ বিতর্ক চলেই আসছে এবং এখনও চলছে।
এসব নিয়ে বিতর্ক থাকলেও আমেরিকার যে ক্ষতি হয়েছে বা হচ্ছে সে নিয়ে অবশ্য কোন দ্বিমত নেই কারো মাঝে। ২০১০ এর শুরু থেকে ২০১২ সালের শেষ পর্যন্ত কমপক্ষে একডজন গুপ্তচরকে চীনারা খুন করেছে, একজন প্রাক্তন আমেরিকান কর্মকর্তার মতে। অনুরূপ তিনজন কর্মকর্তা বলেন, একটি সরকারী দালানের প্রাঙ্গনে একজন গুপ্তচরকে তার এক সহযোগীর সামনে গুলিকরে হত্যা করা হয়। সিআইএ-র সাথে কাজ করেন এমন অন্যদের জন্য এ ছিল এক ভয়ঙ্কর হুশিয়ারী!
এখনও অনেকেই চীনাদের জেলে আছেন। ওই কর্মকর্তাদের মতে চীনারা কমপক্ষে ১৮ থেকে ২০ জনের মত আমেরিকান গুপ্তচরকে হয় জেলে না হয় হত্যা করেছে। দু’জন কর্মকর্তা বলেন গোপন সংবাদ সংগ্রহের জাল তৈরীতে বহু সময় ব্যয় হয় যা খুব সুনিপুণভাবে ভেঙ্গে দেয়া হচ্ছে।
গুপ্তচরী কাজের গোপনীয়তা খোলাসা হয়ে গেলে সেখানে কে আছে আর কে নেই খোঁজে বের করা খুবই কঠিন কাজ কিন্তু এ যে বিধ্বংসী তা তো আর বলার অপেক্ষা রাখে না। চীনা দেশে আমেরিকার সম্পদের ক্ষতি নিয়ে একজন কর্মকর্তা বলেন, সেই যে, সিআইএ ও এফবিআই দালাল ওল্ডরিক এমস ও রবার্ট হানসেন বিশ্বাসঘাতকতা করে সব গোপন খবর মস্কোর কাছে ফাঁস করে দিত; ফলে, সে সময়ের সোভিয়েত ইউনিয়ন ও রুশিয়ায় যে ক্ষতি হয়েছিল তার সাথে তুলনা করা যায়। [আরো আছে]

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT