1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
বছরের শেষ মাস ও কমলগঞ্জ - মুক্তকথা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৭:১৯ পূর্বাহ্ন

বছরের শেষ মাস ও কমলগঞ্জ

কমলগঞ্জ(মৌলবীবাজার) প্রতিনিধি॥
  • প্রকাশকাল : শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২৬১ পড়া হয়েছে

কমলগঞ্জে কালর্ভাটের নিচে মিলল

চা শ্রমিকের রক্তাক্ত লাশ

 

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী মাধবপুর ইউনিয়নের পাত্রখোলা চা বাগানের বাজার লাইনের ড্রেন থেকে রঞ্জিত ভূমিজ (২৫) নামের এক চা শ্রমিক যুবকের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত রঞ্জিত ভূমিজ পাত্রখোলা চা বাগানের পশ্চিম লাইন এলাকার মৃত পরিমল ভূমিজের ছেলে।

গত বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর ) রাত ১০ টায় এলাকাবাসী শ্রমিক লাইনের একটি কালভার্টের নিচে রক্তাক্ত অবস্থায় একটি মরদেহ পরে থাকতে দেখে কমলগঞ্জ থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে রাত পৌনে ১২টার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, পাত্রখোলা চা বাগানের পশ্চিম লাইন এলাকার চা শ্রমিক যুবক রঞ্জিত অতিরিক্ত মদ্যপ পান অবস্থায় বাজার লাইনের দিকে যাচ্ছিল। এসময় শরীরের ভারসাম্য হারিয়ে কালভার্টের নিচে পড়ে পাকার পিলারে গিয়ে মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এলাকাবাসী রক্তাক্ত অবস্থায় মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মহাদেব বাছার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রাথমিক ধারণা করা হচ্ছে অতিরিক্ত মদ্যপ পান করায় শরীরের ভারসাম্য হারিয়ে কালভার্চের নিচে পড়ে পাকার পিলারে মাথায় আঘাত পেয়ে তার মৃত্যু হতে পারে। পুলিশ নিহত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। ময়নাতদন্তের পর মূল ঘটনা জানা যাবে পরে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কমলগঞ্জে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে আমন ধান ও শীতকালীন সবজী নষ্ট

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’ এর প্রভাবে গত দুদিন ধরে অব্যাহত গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে আমন ধান নিয়ে বিপাকে কৃষকেরা। বৃষ্টির কারণে অনেক কৃষক জমি থেকে আমন ধান কাটা, মাড়াই করতে না পারায় লোকসানের শঙ্কায় রয়েছেন। এছাড়া শীতকালীন সবজী নষ্ট হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।
উপজেলার কৃষকেরা জানান, এর আগে ঘূর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে আমন ধান ও শীতকালীন সবজীর। বর্তমানে আমনধান ঘরে তোলার ধূম পড়েছ। কিন্তু নিম্নচাপের প্রভাবে বৃষ্টির কারণে ধান কাটা, মাড়াই, ধান শুকানোতে অনেক সমস্যা হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে তাঁদের খেতের আমন পাকা ধান মাটিতে শুয়ে পড়েছে। শুধু আমন ধান নয়, রবি ফসল নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এর আগে ঘূর্ণিঝড় মিধিলির প্রভাবে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে আমন ধান ও শীতকালীন সবজীর।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্রে জানা যায়, চলতি বছরে ১৭ হাজার ৩০৮ হেক্টর জমিতে আমন চাষ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে কৃষকেরা ৫২ শতাংশ আমন ধান ঘরে তুলেছেন। এ ছাড়াও ১ হাজার ৫৯৫ হেক্টর জমিতে শীতকালীন সবজি ও ৫৫৫ হেক্টর জমিতে আলু, ২৭৯ হেক্টর টমেটো ও ৪৬৬ হেক্টর জমিতে শরিষা চাষ করা হয়েছে। মিধিলির বৃষ্টিতে পাকা ধান ও সবজির ক্ষতি হয়েছে। এখন আবার বৃষ্টি হচ্ছে। কৃষকের ক্ষতি হবে।
সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে দেখা যায়, বৃষ্টির কারনে কাটা ধান জমিতে নষ্ট হচ্ছে। অনেকের ধান মাড়াই করলেও রোদের অভাবে নষ্ট হচ্ছে। বেশিরভাগ খেতের পাকা ধান জমিতে নুয়ে পড়ছে।

পতনঊষার ইউনিয়নের কৃষক আনোয়ার মিয়া বলেন, আমি ৫ একর জমির মধ্যে আমন ধান চাষ করছি। আমার ধান পুরোপুরি পেকে গেছে। কিছুদিন আগে বৃষ্টির কারণে আমার আমন ধানের অনেক ক্ষতি হয়েছে। এখন আবার বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে ধান কাটা, শুকানো ও মাড়াই করা যাচ্ছেনা। ধান ঘরে তোলার সময়ে দুই বারের বৃষ্টিতে অনেকে ক্ষতি হয়েছে।

রহিমপুর ইউনিয়নের কৃষক বেলাল মিয়া বলেন, কিছুদিন আগে ঘূর্ণিঝড় মিধিলির কারণে আমার আলু ও সরিষা ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। এখন আবার রোপণ করেছি আবার বৃষ্টি হচ্ছে। আমার আমন পাকা আমন ধানেরও অনেক ক্ষতি হয়েছে।

কমলগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্ত জয়ন্ত কুমার রায় বলেন, মিধিলির বৃষ্টির কারণে আগে পাকা আমন ধান ও শীতকালীন সবজীর কিছুটা ক্ষতি হয়েছে। এখন বৃষ্টি হচ্ছে, পাকা আমন ধান, সরিষাসহ কিছু সবজির ক্ষতি হতে পারে।পাকা ধান দ্রুত কাটার জন্য কৃষকের প্রতি তিনি অনুরোধ করেন।

কমলগঞ্জে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে টাকা দাবির অভিযোগ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার মিথ্যা পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে (০১৯৩৮৬৯৭৪৪৫) থেকে ফোন করে একটি চক্র বিভিন্ন ব্যক্তির থেকে অনৈতিক সুবিধা নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ ওঠেছে। উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছা. হোসনে আরা তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ বিষয়ে মঙ্গলবার (৫ ডিসেম্বর) সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দিয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফেসবুক আইডি থেকে সতর্কবার্তা পোস্ট করেন।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা জানান, কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) একজন ইউপি সদস্যকে বরাদ্দ আসছে ১০টা সেলাই মেশিন আপনাকে ২ হাজার টাকা করে অফিসের নাম্বারে দিতে হবে বলে জানায় প্রতারক চক্র। তিনি টাকাও দিয়েছেন। পরে আমার অফিসে আসার পর বুঝতে পেরেছেন এটা প্রতারক চক্র। আমি আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বলেছি উনাকে। এ ছাড়াও কিছুদিন ধরে উপজেলার কিছু অসহায় মানুষদের উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে সেলাই মেশিন দেওয়া হবে বলে জানায়। তখন তাদেরকে ২ হাজার টাকা জমা দিতে হবে। এভাবে অনেকেই টাকা দিয়েছে। কিন্তু মূলত এটা একদম ভূয়া। এখন আমাদের অফিসে কিছু লোক আসছে এমন অভিযোগ নিয়ে।

এ বিষয়ে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছাঃ হোসনে আরা তালুকদার বলেন, আমি এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এ ছাড়া কেউ যদি আমার নাম বা যেকোনো নম্বর থেকে এমন বিভ্রান্তিকর ফোন পেয়ে থাকেন, তাহলে তাদের বলব তারা যেন আমাকে জানান। ‘অর্থ আদায়ের বিষয়টি ‘উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা’ নামের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রকাশ করেছি। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য অবহিত করা হলো। প্রতারক চক্রের সাথে যে কোনো প্রকার আর্থিক লেনদেন থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করেন তিনি।

 

ভারতে পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধের অজুহাতে

কমলগঞ্জে কেজিতে ৭০/৮০ টাকা বৃদ্ধি

ক্ষুব্ধ মানুষ

ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধের অজুহাতে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার হাটবাজারেও ব্যবসায়ীরা কেজিতে ৭০ থেকে ৮০ টাকা দাম বৃদ্ধি করেছেন। এভাবে বাজারে বিভিন্ন পণ্যদ্রব্যের দাম বৃদ্ধি, মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া, ওজনে কারচুপি, মূল্যচার্ট না থাকাসহ বিভিন্ন অনিয়ম পরিলক্ষিত হলেও ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের তেমন কোন তৎপরতা নেই। আকস্মিকভাবে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্ষুদ্ধ হয়ে উঠছেন সাধারণ মানুষ।

ক্রেতাদের অভিযোগে জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর, ভানুগাছ, মুন্সীবাজারসহ বিভিন্ন বাজারে ১০০ থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হয়। ভারত থেকে পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধের অজুহাতে শুক্রবার বিকেল থেকেই সেসব পেঁয়াজ কেজি প্রতি ১৭০ থেকে ১৮০ টাকা দরে বিক্রি হয়। দোকানে পূর্বের পেঁয়াজ মজুদ থাকার পরও মোদী দোকানী ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমতো দাম আদায় করে নিচ্ছে। তাছাড়া বিভিন্ন পণ্যের দাম বাড়িয়ে নেয়া, মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়া, ওজনে কারচুপি, মূল্যচার্ট না থাকার বিষয়ে মধ্যবিত্ত ও নি¤œবিত্তরা ঠকছেন। এসব বিষয়ে ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরের তেম কোন তৎপরতা নেই বলে অনেকেই অভিযোগ তুলেন।

শমশেরনগর বাজারের ক্রেতা জাবের আলী, আলমগীর হোসেন, শাহজাহান আহমদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দাম বাড়ার সংবাদ শুনেই ব্যবসায়ীরা কেজিতে ৭০ থেকে ৮০ টাকা দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। এটি মোটেও ঠিক হয়নি। সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে ব্যবসায়ীরা ইচ্ছেমতো দাম আদায় করে নিচ্ছে। প্রশাসনের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ প্রয়োজন।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি সোহেল আহমদ বলেন, কিছুদিন পরেই জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এরই মধ্যে পেঁয়াজের দাম বেড়ে কেজি ১৮০ টাকা হয়েছে। এটি কোন অবস্থাতেই মেনে নেয়া যায় না। পূর্বের পেঁয়াজ রেখে ব্যবসায়ীরা সাথে সাথেই কেজিতে ৭০ থেকে ৮০ টাকা বাড়িয়ে নিচ্ছে। এতো দামে পেঁয়াজ কিনার ক্ষমতা মুষ্টিমেয় মানুষের পক্ষে সম্ভব হলেও বর্তমান দ্রব্যমূল্যেল বাজারে সাধারণ মানুষজনের সেই সামর্থ্য নেই বলে তিনি দাবি করেন। এতে সরকারের ভাবমুর্তিও ক্ষুন্ন হচ্ছে।

শমশেরনগর বিমানবন্দর সড়কের ব্যবসায়ী বাবলু মিয়াসহ কয়েকজন মোদী দোকানী জানান, দাম কমলে আমরা লোকসান দিতে হয়। তাই দাম বাড়ার সংবাদে আমরাও পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে বিক্রি করছি।

ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তর, মৌলভীবাজার এর সহকারী পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে আমরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে মনিটরিং অব্যাহত রেখেছি। শনিবারও অতিরিক্ত দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় শ্রীমঙ্গলে অভিযান করে ২ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা আদ্য়া করেছি। ভারত থেকে পেঁয়াজ না আসার কারণে কিছুটা দাম বেড়েছে। তবে কত টাকা বেড়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তাছাড়া সব সময়েই হাটবাজারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন বলেন, পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির খবরে আমাদের অভিযান চলছে।

 

কমলগঞ্জে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালন

 

“উন্নয়ন, শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্যে দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালন হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির উদ্যোগে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন, জাতীয় পতাকা ও দুদক পতাকা উত্তোলন, ফেস্টুন-বেলুন উড়ানো, মানববন্ধন এবং “দুর্নীতি দমন ও প্রতিরোধে করণীয়” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোঃ রফিকুর রহমান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা স্কাউটস এর সাধারণ সম্পাদক মোসাহীদ আলির সঞ্চালনায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আছলম ইকবাল মিলন, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মুনিম তরফদার, দুপ্রকের সহ সভাপতি আব্দুল হান্নান চিনু, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছাঃ হোসনে আরা তালুকদার প্রমুখ।

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক শাহজাহান মানিক। অনুষ্ঠানে সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক’সহ বিভিন্ন এনজিও এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ শতাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

 

মৌলভীবাজার-৪ আসনে ১ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-৪ (শ্রীমঙ্গল-কমলগঞ্জ) আসেেন ৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ১ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করছেনে রিটার্ণিং অফিসার। সোমবার বিকাল ৪ টা পর্যন্ত মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে এ আসনের বৈধ প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক ও জেলা রিটার্ণিং অফিসার ড. উর্মি বিনতে সালাম। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করে ঘোষণাকৃত বৈধ প্রার্থীরা হলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মো: মোস্তান মিয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থীী নজরুল ইসলাম, বাংলাদশে ইসলামী ফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মোহিত হাসানি ও ইসলামী ঐক্যজোটরে মনোনীত প্রার্থী মো: আনোয়ার হোসাইন। একটি খেলাপী ঋনের জামিনদাতা হওয়ায় মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে জাকের পার্টির মনোনীত প্রার্থী মুহিবুর রহমান আজাদ এর।

কমলগঞ্জে শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ প্রদান

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা গুড নেইবারস্ বাংলাদেশ এর আয়োজনে ৫ হাজার শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ প্রদান করা হয়েছে। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টায় উপজেলার আদমপুর তেতইগাঁও রশিদ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে এ শিক্ষা ও স্বাস্থ্য উপকরণ বিতরণ করা হয়।

গুড নেইবারস্ বাংলাদেশ এর কান্ট্রি ডিরেক্টর এম. মাঈনুদ্দীন মাইনুলের সভাপতিত্বে ও একে বাংলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক আনিসুজ্জামান মিজান এবং শিক্ষিকা মাহিমা আক্তার মুক্তার যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম, আদমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবদাল হোসেন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সামছুন নাহার পারভীন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হোসনে আরা তালুকদার, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রিপন চন্দ্র দাস, গুড নেইবারস বাংলাদেশ্ মৌলভীবাজার সিডিপির প্রকল্প ব্যবস্থাপক বিপুল রেমা প্রমুখ।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংস্থার শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান রাজিয়া সুলতানা। উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ৫ হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে এ শিক্ষা উপকরন দেওয়া হবে।

 

কমলগঞ্জে বাসার সামনে থাকা বাসে রহস্যজনক আগুন

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাসার সামনে থাকা বাসে রহস্য আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। তবে মালিকের দাবী গত এক মাস ধরে বাসটি বন্ধ ছিল। হয়তো শর্ট সার্কিট হতে আগুন লাগতে পারে। পুলিশসহ স্থানীয়রা পানি দিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনলে এর আগেই বাসটির ভিতরে কয়েকটি সিট পুড়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় উপজেলার শমশেরনগর লামাবাজারে। বাসটির মালিক লামাবাজার এলাকার হাজী মনসুর আলী।

পুলিশ ও বাস মালিক জানান, শমশেরনগর লামা বাজারের হাজী মনসুর আলীর ৩টি বাস বিএনপির ডাকা অবরোধ শুরু হবার পর হতে নিজ বাসার সামনের রাস্তায় বন্ধ অবস্থায় রয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় হঠাৎ বাসে আগুন দেখতে পান স্থানীয়রা। বাসার ভিতর হতে বের হয়ে আসেন লোকজন। আগুন ততক্ষনে ভিতরে দাউ দাউ করে জ্বলে উঠে। স্থানীয় দোকানদারসহ এলাকাবাসী ছুটে এসে দোকান ও বাসার পাইপ লাইনের পানি ব্যবহার করে ১০/১৫ মিনিটের মধ্যে আগুন নিযন্ত্রনে আনেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। আগুনে বাসের ভিতরের কয়েকটি সিট পুড়ে গেছে। তবে স্থানীয়রা অনেকেই আগুন লাগার বিষয়টি রহস্যজনক মনে করছেন। বৃষ্টির দিনে কিভাবে শর্ট সাকির্ট হবে এটা তাদের প্রশ্ন। বাসটি স্টার্ট অবস্থায়ও ছিল না।

আলাপকালে বাসের মালিক হাজী মনসুর বলেন, বাসটি বন্ধ ছিল। কিভাবে আগুন লেগেছে দেখেননি। তবে মনে করছেন হয়তো ব্যাটারির শর্ট সার্কিট হতে লাগতে পারে। কোনো নাশকতা কি না এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আগুন লাগার বিষয়টি দেখিনি।

শমসেরনগর পুলি ফাঁড়ির ইনচার্জ ওসি(তদন্ত) শামীম আকনজী বলেন, কোনো নাশকতা নয়। মালিকের দাবী বন্ধ থাকায় হয়তো শর্ট সার্কিট হতে পারে। তারপরও বিষয়টি তদন্ত করা হবে।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT