1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
ভারত ৪৫০কোটি ডলার ঋণ দেবে বাংলাদেশকে - মুক্তকথা
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন

ভারত ৪৫০কোটি ডলার ঋণ দেবে বাংলাদেশকে

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : বুধবার, ৫ এপ্রিল, ২০১৭
  • ১১৯৪ পড়া হয়েছে

লন্ডন: বুধবার, ২২শে চৈত্র ১৪২৩।। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরে বাংলাদেশকে ৪৫০ কোটি ডলার বা সাড়ে ৪ বিলিয়ন ডলার ঋণ দেবে ভারত। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৩৬ হাজার কোটি টাকা। যোগাযোগ, পরিকাঠামো, বিদ্যুৎ–সহ বিভিন্ন খাতের ১৭টি প্রকল্পে এই সহায়তা দেওয়া হবে। ৭ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর সফরের সময় দু’‌দেশের মধ্যে এ বিষয়ে সমঝোতা স্মারক (মউ) সই হবে। এছাড়া দু’‌দেশের মধ্যে ৩৩টি চুক্তি এবং সমঝোতা স্মারক হবে বলে আশা করছে বাংলাদেশ সরকার। বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলি মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছেন।
তিনদিনের এই রাষ্ট্রীয় সফরের প্রকল্পভিত্তিক ঋণচুক্তি হবে। তারপরই অর্থছাড় হবে। তৃতীয় ধাপে যে ঋণ দেওয়া হবে, তার শর্ত আগের দেওয়া ঋণগুলির মতোই। প্রস্তাবিত ঋণে সুদহার হবে ১ শতাংশ। ৫ বছর গ্রেস পিরিয়ড–সহ ২০ বছরে ঋণ পরিশোধ করতে হবে। সূত্রটি জানায়, প্রস্তাবিত ঋণের মধ্যে শতকরা ৭৫ ভাগ বাণিজ্য করতে হবে ভারত থেকে। বাকি ২৫ ভাগ বাংলাদেশ জোগান দেবে। এছাড়া ভারতের মনোনীত ঠিকাদারি কোম্পানি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। ভারত সরকারের পক্ষে এক্সিম ব্যাঙ্ক ঋণ দেবে।
এর আগে ২০১০ ও ২০১৫ সালে একই শর্তে বিভিন্ন প্রকল্পে দুই দফায় ভারতের সঙ্গে মোট ৩০০ কোটি ডলার ঋণচুক্তি সই করেছিল বাংলাদেশ সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরকে কেন্দ্র করে নতুন করে ৪৫০ কোটি ডলারের প্রতিশ্রুতি পাওয়া গেছে।
মঙ্গলবার ঢাকায় বিদেশ মন্ত্রকে সাংবাদিক বৈঠকে এ এইচ মাহমুদ আলি জানিয়েছেন, ‘ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ৭ থেকে ১০ এপ্রিল ভারত সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভারত–বাংলাদেশ সম্পর্ক এখন একটি নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। আমরা নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করব।’ মন্ত্রী জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একটি নিমন্ত্রণপত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভারত সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। আর একটি পৃথক নিমন্ত্রণপত্রে ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি রাষ্ট্রপতি ভবনে থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীকে।
দু’‌দেশের মধ্যে চুক্তি ও সমাঝোতা স্মারকের বেশিরভাগই সীমান্তহাট স্থাপন, তথ্য–সম্প্রচার, বেসামরিক পারমাণবিক সহযোগিতা, বিজ্ঞান–প্রযুক্তি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, স্যাটেলাইট ও মহাকাশ গবেষণা, ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান, ভারতের প্রদেয় তৃতীয় লাইন অফ ক্রেডিট, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সহযোগিতা সম্পর্কিত।
সফরে দুই দেশ যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করবে। এবারের সফরে বাংলাদেশের মুক্তিযদ্ধে যে সব ভারতীয় সেনা সদস্য শহিদ হয়েছেন, তাঁদের মরণোত্তর ‘‌মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’‌ দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর এবারের সফরে ৭ জন শহিদকে সম্মাননা দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে ১,৬৬১ জনকে এই সম্মাননা দেওয়া হবে। ১০ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী দু’‌দেশের ব্যবসায়ীদের একটি বিজনেস ইভেন্টে অংশ নেবেন। সেখানে বাংলাদেশের ব্যবসাবান্ধব পরিবেশের চিত্র ভারতীয় ব্যবসায়ীদের কাছে তুলে ধরা হবে। ভারতীয় ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগে উদ্বুদ্ধ করা হবে।
প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীদের মধ্যে রয়েছেন বিদেশমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী, আইন ও বিচারমন্ত্রী, পানিসম্পদমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা, বিদেশ রাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়–সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিবরা। -আজকাল থেকে

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT