1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
মেয়র লুৎফুর অপসারনে সহায়তা, আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিলনা - মুক্তকথা
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন

মেয়র লুৎফুর অপসারনে সহায়তা, আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিলনা

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : রবিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১২৯৩ পড়া হয়েছে

মুক্তকথা: রোববার, ১১ই সেপ্টেম্বর ২০১৬।।  
সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমানকে অপসারন করতে পেরে আমি গর্বিত, এটা আমার ভুল সিদ্ধান্ত ছিলনা। লুৎফুর রহমান একজন দূর্নীতিবাজ মানুষ। সে বাঙ্গালীর ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব তৈরীর রাস্তাকে কঠিন করে গেছে। সে ছিলো অদূরদর্শী একজন ভিলেজ পলিটিশিয়ান।

টাওয়ার হ্যামলেটসের চাঞ্চল্যকর নির্বাচনী মামলার অন্যতম দরখাস্তকারী আজমাল হোসাইন এক ইমেইল বিবৃতিতে উপরোক্ত মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, বাংলা পত্রপত্রিকায় আমার বক্তব্য এমন ভাবে এসেছে, মনে হচ্ছে যেন লুৎফুর রহমানকে অপসারনে সরকারকে সহায়তা করে ভুল করেছি।
অথচ তথাকথিত এই ‘ভুল সিদ্ধান্ত’ সাবেক দূর্নীতিবাজ মেয়র লুৎফুর রহমানকে সরানোর কারনে নয়। লুৎফুর রহমান অপসারিত হয়েছেন, এটা আমাদের সমাজের গর্ব এবং অবশ্যই আমিও গর্বিত। মামলায় বিজয়ী হবার পরও আর্থিক লোকসানের সন্মুখীন হতে হবে না এমন নিশ্চয়তা থাকলে ভবিষ্যতে এধরনের মামলা আমি আবারও করতে পিছপা হবো না।
আইনের মারপ্যাঁচের কারনে যে মানসিক, আর্থিক এবং ব্যবসায়িক ক্ষতির শিকার হচ্ছি একারনে মাঝে মাঝে মনে হয় ভুল করেছি। বিভিন্ন কারনে এটা ছিলো আইনের প্রতি, রাষ্ট্রের প্রতি আমার হতাশার কথা। আমরা আইনের সহায়তা পাচ্ছি না মনে হচ্ছে। একজন দূর্নীতিবাজ মেয়রকে অপসারিত করতে সমাজ এবং রাষ্ট্রকে সহায়তা করলাম অথচ এরাই এই আর্থিক ক্ষতি পোষাতে এখন আমাকে সহায়তা করছেনা।
তিনি বলেন, আজ রাষ্ট্রের কাছে আমার প্রশ্ন, মামলায় জেতার পর আমাদেরকে এই ভোগান্তি পোহাতে হবে কেন? কি এমন কারন থাকতে পারে যে, আদালত দ্বারা শাস্তিপ্রাপ্ত একজন দূর্নীতিবাজকে এভাবে আইনকে ফাঁকি দেয়ার সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে? মামলায় পরাজিত লুৎফুর রহমান আমাদের প্রাপ্য অর্থ পরিশোধ না করার কারনেই আজ আমাদের এই ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে। এটা আমাদের মামলার খরচ। এই অর্থ তো আমরা ব্যক্তিগতভাবে নিবনা।
আজমাল হোসাইন আরো বলেন, জীবনে আমি আরো মামলায় জিতেছি। সেসব মামলায় জেতার সাথে সাথেই আমার ঝামেলা শেষ হয়েছে। পরাজিত পক্ষকে আমার মামলার খরচ দিতে হয়েছে। নির্বাচনী মামলায়ই এর ব্যতিক্রম দেখলাম। জেতার পরও মামলার খরচের জন্য চিন্তা করতে হচ্ছে। অথচ এই মামলায় জিতে আমরা ৪জন ব্যক্তিগতভাবে কোন লাভবান হইনি। যা কিছু লাভ হয়েছে সমাজের। আমাদের মামলার কারনে একজন চরম দূর্নীতিবাজ মেয়র পাবলিক অফিস থেকে বিদায় নিয়েছে। সমাজ কলংকমুক্ত হয়েছে। আজ যদি আমরা হেরে যেতাম তাহলে তো লুৎফুর রহমান আমাদের কাছ থেকে তার খরচ আদায় করে নিতেন। অথচ আমাদের ব্যপারে এর ব্যতিক্রম হল। আজ আমরা হতাশায় সময় গোজরান করছি।
আজমাল হোসাইন বলেন, মামলা চলাকালে তার বহু অতীত কুকীর্তি বের হয়ে এসেছে। সেসব বাংলা মিডিয়ায় না আসার কারনে বাঙ্গালী সমাজ অবগত নন। এক পর্যায়ে আমিও ভেবেছি এনাফ ইজ এনাফ। ভবিষ্যতে রাজনীতিতে আসলে সেসব হয়তো প্রকাশিত হবে। সে তার বিভিন্ন কর্মকান্ড দ্বারা বাঙ্গালী সমাজের যে ক্ষতি করে গেছে তা আমাদেরকে অনেকদিন বইতে হবে। ব্যক্তিগত উচ্চাভিলাস চরিতার্থ করার জন্য সে বাঙ্গালী, ইসলাম ধর্ম এবং বর্ণবাদকে বিক্রি করেছে। তার মতো একজন মানুষকে সরানোর জন্য আমার কোন দুঃখ নেই।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT