1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
সরকার সাবধান না হলে গণঅভ্যুত্থান | মোশাররফের ফাঁফা বুলি - মুক্তকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১২:১৮ অপরাহ্ন

সরকার সাবধান না হলে গণঅভ্যুত্থান | মোশাররফের ফাঁফা বুলি

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ২১২ পড়া হয়েছে
thunder storm

হারুনূর রশীদ।।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল’এর খন্দকার মোশাররফ, সরকারকে হুমকি দিয়েছেন। বলেছেন গণঅভ্যুত্থান হয়ে যাবে। জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি শফিউল আলম প্রধানের সভাপতিত্বে আয়োজিত ও অনুষ্ঠিত এক সভায় সরকারকে উদ্দেশ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেছেন, এখনও সময় আছে সাবধান হোন, অন্যথায় গণ-অভ্যুত্থান সৃষ্টি হবেই। জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে রাজনৈতিকভাবেই সমঝোতায় আসতে হবে। আর এ জন্য প্রয়োজন নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা। কিন্তু ব্যত্যয় ঘটলে দেশের জনগণ বসে থাকবে না। এই পরিস্থিতিতে দেশে যে বিশৃঙ্খলা ও নৈরাজ্য সৃষ্টি হবে, তার দায়ভার এককভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিতে হবে।
এতো কিছু বলেছেন, কিন্তু কোথায়ও ঘুণাক্ষরেও, তিনি বা তাদের দল গণঅভ্যুত্থান করবে বা ঘটাবে এমনটি বলার সাহস হয়নি। সব দোষ জনগনের কাঁধে চাপিয়ে দিয়ে বলেছেন। জনগন বসে থাকবে না, জনগন অভ্যুত্থান সৃষ্টি করবে, ইত্যাদি ইত্যাদি। আরে ভাই, তাকে এভাবেই বলতে ইচ্ছে হয়, আমরা কি আপনার সেই জনগনের অংশ নই? আমরাতো এমন ভাবি না। শুধু তাই নয়, দেশে নির্বাচন হবে। যে সরকার আছে সেই সরকারই নির্বাচন চালাবে। এটাইতো বিশ্বব্যাপী গণতান্ত্রিক দেশে চলে আসছে। এই ধরুন বৃটেন কিংবা আমাদের প্রতিবেশী ভারত, তাদের ওখানেতো ওই ক্ষমতাশীন সরকারই নির্বাচনের ব্যবস্থা করে এবং চালায়। বৃটেনেতো কোন নির্বাচন কমিশন নেই। ক্ষমতাশীন সরকারই নির্বাচন তদারকি করে থাকে। হ্যাঁ, ভারতে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন আছে। কমিশন নির্বাচনের আসল তদারকি করে। তা আমাদেরওতো সেই একই ধরনের নির্বাচন কমিশন রয়েছে। হতে পারে আমরা ছোট দেশ। নতুন দেশ। আমরা অনেক কিছুই এখনও বুঝে উঠিনি। কিছু ফাঁক থাকতেই পারে। তাই বলে ওই ফাঁকের জন্য আপনি একজন বয়স্ক রাজনৈতিক ব্যক্তি হয়ে কোন ক্ষমতা আর আইন বলে এমন অগণতন্ত্রিক কথা বলতে পারেন!
সাধারণ মানুষকে নিয়ে অভ্যুত্থানের চেষ্টাতো আপনারা কম করেননি। বহু বাড়ী-গাড়ী পুড়িয়েছেন, অনেক নিরীহ সাধারণ মানুষের জীবন কেড়ে নিয়েছেন। অনেক নারীকে বিধবা করেছেন। অনেক মায়ের বুক খালি করেছেন। অসংখ্য পরিবার ধ্বংস করে দিয়েছেন। আপনাদের রাজনৈতিক আচরণ দেখে আমাদের মনেপড়ে যায় আর চোখের সামনে ভেসে উঠে সেই একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের বিভীষিকাময় দিনগুলির কথা ও চিত্র। আমাদের মনে হয় আপনারা সেই পাকিস্তানের সুরেই কথা বলছেন।
দেশের অসংখ্য সমস্যা রেখে আপনাদের রাজনীতি শুধুমাত্র ক্ষমতাকে ঘিরে। দেশের অর্থনৈতিক রাজনৈতিক শত শত বিষয়ে কথা বলা, আন্দোলন করার যায়গা থাকা সত্ত্বেও আপনারা সেসব বিষয়ে কোন এক অজ্ঞাত কারণে নীরব। অথচ দাবী করতে চান আপনারা বিরুধী দল(?)। তবে কি আপনারা দেশের কোন স্থিতিশীলতা চান না। আর তাই নির্বাচনের সুযোগ পেয়েও আপনারা ছুঁতো খুঁজে বেড়াচ্ছেন কি করে নির্বাচন পন্ড করা যায়।
এর আগে গেল সপ্তাহে আপনাদের গয়েশ্বর রায় মুখ ফসকে বলে ফেলেছিলেন হাসিনা নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাওয়ার ইচ্ছে থাকলে তারা এখন কেনো, এর আগের নির্বাচনেই যেতে পারতেন। তিনি হয়তো ভুলেই গিয়েছেন যে এর অর্থ দাড়ায় তারা নির্বাচনে আস্তা রাখেন না। নির্বাচন পদ্ধতিতে সরকার বদলের নীতিতে তাদের আস্তা থাকলে গয়েশ্বর বাবু এমন কথা বলতেন না। বলতে পারেন না।
গয়েশ্বর মহাশয় একসময় জাসদ করতেন। আর মোশাররফ সাহেবতো পাকিস্তানের খোদ বান্দা ছিলেন মু্ক্তিযুদ্ধচলাকালীন সময় পর্যন্ত। অবশ্য এক চিন্তায় তাদের এ নমুনার প্রলাপ করার কথাও বটে। কারণ, জাসদ থেকে সরে গিয়ে গয়েশ্বর রায় এখন জামাত-মুসলিম লীগ আদলের দলে আছেন। তাদের ‘পিয়ারা পাকিস্তান’এর জন্য মন এখনও নিরবে নিভৃতে কাঁদে। নতুবা খালেদা জিয়ার মামলাকে নিয়ে মোশাররফ সাহেব এতো নমুনায় অগণতান্ত্রিক কথা বলতেন না। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে একটি আইনী মামলা চলছে। কেউ চাইলেই তাঁকে যেমন জেলে দিতে পারবেন না; ঠিক কেউ চাইলেই তাকে খালাস করে নিয়ে আসতে পারবেন না। যতই ক্ষমতা, ঘুষ দূর্নীতি থাকুক না কেনো, আইনতো আইনই। আইনের প্রক্রিয়ায় হয় তিনি খালাস পাবেন নতুবা শাস্তি হবে। এখানে বল প্রয়োগে কিছু করার স্থান তো একেবারেই নেই।
আমরা বুঝি তাদের মূল বিরোধ কোনখানে। ক্ষমতায় থাকাকালীন যেসব অপরাধ আর বেআইনী অন্যায় করে নিজেদের আখের গোছিয়েছেন বিরোধ রয়েছে সেখানে। সে মিমাংসার জন্য আমরা নিরীহ জনগনের নামে হুমকি। রাজনীতি তো নয় ‘ইয়ার্কি’ আরকি! তারা মনে করেন সাধারণ মানুষ কিছুই বুঝে না। শুধু তাদেরই বয়স হয়েছে আর আমরা সকলেই কঁচি খোকা রয়েছি। অপেক্ষায় থাকবো মোশাররফ সাহেবদের আন্দোলনের রূপ দেখার।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT