1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
স্বাধীনতার নিউক্লিয়াসের স্রষ্টা সিরাজুল আলম খান আর নেই - মুক্তকথা
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১২:৫৯ অপরাহ্ন

স্বাধীনতার নিউক্লিয়াসের স্রষ্টা সিরাজুল আলম খান আর নেই

বিশেষ প্রতিনিধি
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ৯ জুন, ২০২৩
  • ১৮৫ পড়া হয়েছে

স্বাধীন বাংলাদেশ আন্দোলনের ‘নিউক্লিয়াস’এর স্রষ্টা প্রবীণ রাজনীতিক সিরাজুল আলম খান(দাদা ভাই) আর নেই। আজ শুক্রবার(৯ জুন) দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে রাজধানীর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমের।
সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা যায় যে, তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক।

এর আগে অসুস্থ সিরাজুল আলম খানকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে গত ১ জুন তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার(৮ জুন) রাতে তাঁকে ‘লাইফ সাপোর্ট’-এ নেওয়া হয়।

ষাটের দশকের সফল সংগঠক সিরাজুল আলম খান মানুষকে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন এবং সে লক্ষ্যে ১৯৬২সালে স্বাধীন বাংলার নিউক্লিয়াস গঠন করেছিলেন। সিরাজুল আলম খানের জন্ম নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার আলীপুর গ্রামে, ১৯৪১ সালের ৬ জানুয়ারি। তাঁর বাবা খোরশেদ আলম খান ছিলেন স্কুল পরিদর্শক। মা ছিলেন গৃহিণী সৈয়দা জাকিয়া খাতুন। নয় ভাই-বোনের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়।

ইতিহাস থেকে বিলুপ্ত পূর্বপাকিস্তান আমলে প্রগতিশীল আন্দোলনের নেতা সিরাজুল আলম খান ১৯৬১ সালে পূর্বপাকিস্তান ছাত্রলীগের সহসাধারণ সম্পাদক হন। ১৯৬৩ সালে তিনি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৭২ সালে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল(জাসদ) গঠনের তিনিই প্রধান উদ্যোক্তা ছিলেন।

সিরাজুল আলম খানের মৃত্যুর খবরে হাসপাতালে ছুটে যান জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু, বাংলাদেশ জাসদের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের(জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের(বাসদ) সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান, নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান(মান্না), জনসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি, বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, গণ অধিকার পরিষদের সদস্যসচিব নুরুল হক(নুর)।

লেখক মহিউদ্দিন আহমদের ‘প্রতিনায়ক সিরাজুল আলম খান’ বইটিতেই সিরাজুল আলম খান তাঁর শেষ ইচ্ছার কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘আমার মৃত্যুর পর কোনো শোকসভা হবে না। শহীদ মিনারে ডিসপ্লে হবে না লাশ। যত দ্রুত সম্ভব নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে আমার গ্রামের বাড়িতে পাঠাতে হবে মরদেহ, যা ঢাকা থাকবে একটা কাঠের কফিনে। মায়ের একটা শাড়ি রেখে দিয়েছি। কফিনটা শাড়িতে মুড়ে মাটিতে পুঁতে ফেলতে হবে, মায়ের কবরে।’

সিরাজুল আলম খানের মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ দেওয়া এক শোকবার্তায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘স্বাধীনতা আন্দোলনের সূচনালগ্নের অন্যতম সংগঠক সিরাজুল আলম খানের মৃত্যুতে আমরা শোকাভিভূত। তিনি আমাদের সত্তার মাঝে অমর হয়ে থাকবেন।’

জাসদের দপ্তর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন জানিয়েছেন, সিরাজুল আলম খানের মরদেহ বিকেলে হাসপাতাল থেকে মোহাম্মদপুরের আল-মারকাজুলে নেওয়া হয়েছে। সেখানে গোসল শেষে রাতে শমরিতা হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হবে। আগামীকাল শনিবার সকাল ১০টায় বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে জানাজা শেষে নোয়াখালীতে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে পুনরায় জানাজা শেষে বেগমগঞ্জের আলীপুরে মায়ের কবরের পাশে তাঁকে শায়িত করা হবে।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT