1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
গেলো মাসে কমলগঞ্জের দিনলিপি - মুক্তকথা
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৪ অপরাহ্ন

গেলো মাসে কমলগঞ্জের দিনলিপি

কমলগঞ্জ(মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি॥
  • প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১২৩ পড়া হয়েছে

গলায় ফাঁস দিয়ে চা শ্রমিকের আত্মহত্যা


মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি চা বাগান এলাকায় সজল বাউরি(১৯) নামের এক যুবক গলায় কমরের বেল্ট দিয়ে গাছের ডালের সাথে আত্মহত্যা করেছে। গত রোববার(২১ এপ্রিল) রাতে কোনো এক সময় সবার অজান্তে ফুলবাড়ী চা বাগানের ৮ নং সেকশনে এ ঘটনা ঘটে। সে ঐ বাগানের চা শ্রমিক চুন্নু বাউরীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, গত রোববার রাতে মা বাবার সাথে ভাত নিয়ে সজল বাউরির ঝগড়া হয়। আমরা তাদের ঝগড়া শুনতে পাই। সকালে বাগানে গাছের সাথে তার লাশ দেখে তার মা বাবাকে জানাই। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। সে বাগানে চা শ্রমিকের কাজ করতো।

নিহত সজল বাউরির বাবা চুন্নু বাউরী জানান, আমার সাথে ও ছেলের মায়ের সাথে গরম ভাত করে দেওয়ার জন্য সন্ধ্যায় ঝগড়া হয়। সে ঠান্ডা ভাত খাবে না। রাত ৮টার দিকে ঘর থেকে বের হয়ে যায়। আমরা ভাবছি হয়তো প্রতিবেশি কারো ঘরে রাতে থাকতে পারে। তাই আর খোঁঁজ খবর নেইনি। সোমবার সকালে হঠাৎ চা শ্রমিকরা কাজে গেলে চা বাগানের ৮ নং সেকশনে এলাকায় গাছের সাথে ফাস লাগা অবস্থায় তার লাশ দেখতে পেয়ে আমাদের খবর দেয়। আমরা পুলিশকে বিষয়টা জানালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

কমলগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক জিয়াউল হক বলেন, বাগানের ৮নং সেকশন এলাকায় একটি গাছের সঙ্গে গলায় কমরের বেল্ট দিয়ে ফাঁস দেওয়া সজল বাউরি (১৯) নামের এক যুবকের মরদেহ সোমবার সকালে উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় কমলগঞ্জহ থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে।

 

 



মায়ের উপর অভিমান করে কিশোরীর আত্মহত্যা


মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের ঈদগাহ টিলা গ্রামে ঈদের নতুন কাপড়ের জন্য মায়ের উপর অভিমান করে এক কিশোরী(১৬) আত্মহত্যা করার খবর পাওয়া গেছে। গত শনিবার(৬ এপ্রিল ) রাতে মাগরিবের নামাজের পরই এ ঘটনা ঘটে। নিহত কিশোরী ওই এলাকার নাজির মিয়ার ছোট মেয়ে।

নিহত কিশোরীর বাবা নাজির মিয়া বলেন, গত শুক্রবার কিশোরীর মা পরিবারের সবার জন্য বাড়িতে ফেরিওয়ালার কাঝ থেকে কাপড় কিনে নেন। কিন্তু ওই কিশোরী মেয়ে (রিমা আক্তার) বায়না ধরেছে মার্কেট হতে ঈদের কাপড় কিনবে। এই নিয়ে মায়ের উপর অভিমান করে শনিবার রাতে ঘরে থাকা কীটনাশক খেয়ে আতœহত্যা করেছে। ঘটনার খবর পেয়ে শনিবার রাতেই শমশেরনগর ফাঁড়ির পুলিশ নিহত কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে আসে।
শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ওসি (তদন্ত) শামীম আকনজি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রোববার সকালে নিহতের লাশ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

 

 


কমলগঞ্জে গণহত্যা দিবস পালিত


 

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে গনহত্যা দিবস উপলক্ষে সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ হল রুমে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) রইছ আল রেজুয়ান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি এম, মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস বেগম, কমলগঞ্জ থানার ওসি(তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা দুনীর্তি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মুনিম তরফদার, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা জয়ন্ত কুমার রায়, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম তালুকদার, সাবেক পৌর কাউন্সিলর মো: আনোয়ার হোসেন, সাংবাদিক শাহীন আহমেদ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি হামিম মাহমুদ জয় প্রমুখ।

 

 


কমলগঞ্জে পাখি ও পাখি ধরার সরঞ্জাম উদ্বার

 

 

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে অভিযান চালিয়ে পাখি ও পাখি ধরার সরঞ্জাম উদ্বার করা হয়েছে। এই পাখিগুলোকে কাজে লাগিয়ে অন্য পাখিদের ধরে বাজারে বিক্রি করতেন ওই শিকারি। বৃহস্পতিবার(২১ মার্চ) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাল্লারপার এলাকায় এই অভিযান করে বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ।

বন বিভাগের অভিযানে উপস্থিত ছিলেন বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও উদ্ধারের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্ট্যান্ড ফর আওয়ার এনডেঞ্জার্ড ওয়াইল্ডলাইফ (সিউ)’-এর সমন্বয়ক সোহেল শ্যাম, কমলগঞ্জ জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সম্পাদক আহাদ মিয়া, বাঘমারা ক্যাম্পের বিট অফিসার জুলহাস পাটুয়ারী, ওয়াইল্ডলাইফ জুনিয়র স্কাউট তাজুল ইসলাম প্রমুখ।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও উদ্ধারের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্ট্যান্ড ফর আওয়ার এনডেঞ্জার্ড ওয়াইল্ডলাইফ(সিউ)’-এর সমন্বয়ক সোহেল শ্যাম ও কমলগঞ্জ জীববৈচিত্র্য রক্ষা কমিটির সম্পাদক আহাদ মিয়া বলেন, ‘মানুষকে বোঝাতে হবে পাখি ও বন্যপ্রাণী আমাদের পরিবেশ রক্ষায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পাখি শিকার রোধ করতে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। কোথাও কোনো বন্যপ্রাণী আটকা পড়লে বা কেউ ধরলে সঙ্গে সঙ্গে বন বিভাগ ও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।’ শীত মৌসুমে হাওর ও অন্যান্য জায়গায় অতিথি পাখি আসে। এ সময় প্রায়ই পাখি শিকারের কথা বেশি শোনা যায়।’

বন্যপ্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ শ্রীমঙ্গলের রেঞ্জ কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান চালায় বন বিভাগ। আমাদের যাওয়ার খবর পেয়ে পাখি শিকারীরা পালিয়ে যায়। পাখি ধরার সরঞ্জামসহ ৫টা তিলা ঘুঘু পাখি নিয়ে আসি। পাখিগুলো অবমুক্ত করা হয়েছে।’


সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজের

১ যুগ পূর্তি

কেক কাটা ও আলোচনা সভা


মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজের ১ যুগ পূর্তি উপলক্ষে কেক কাটা ও আলোচনা সভা গত শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় কমলগঞ্জ প্রেসক্লাব হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। পত্রিকাটির এক যুগ পূতি অনুষ্ঠানটিচ স্থানীয় সাংবাদিকদের এক মিলন মেলায় পরিণত হয়।

সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজের সম্পাদক ও প্রকাশক পৌর মেয়র মো: জুয়েল আহমেদের সভাপতিত্বে ও প্রধান সম্পাদক মো: মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়নাল আবেদীন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল আলম, উপজেলা দুর্নীতি দমন কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল, লেখক-গবেষক আহমেদ সিরাজ, আব্দুল গফুর চৌধুরী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মো: হেলাল উদ্দিন, প্রবীণ সাংবাদিক ও সমাজসেবক আব্দুল হান্নান চিনু, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি বিশ্বজিৎ রায়, কবি ও প্রভাষক শাহজান মানিক, উপজেলা মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি সুব্রত দেব রায় (সঞ্জয়), প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি সাংবাদিক প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, শাব্বির এলাহী, কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির সভাপতি নুরুল মোহাইমিন মিল্টন, সাবেক সভাপতি এম, এ, ওয়াহিদ রুলু, সাংবাদিক সাজিদুর রহমান সাজু, আব্দুর রাজ্জাক রাজা, কমলকুঁড়ি সম্পাদক পিন্টু দেবনাথ, মাসিক চা মজদুর পত্রিকার সম্পাদক সীতারাম বীন, সাপ্তাহিক দলই ডাক অনলাইন পোর্টালের সম্পাদক আজহার আলী প্রমুখ।

এ সময় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজের সম্পাদককে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এর পর কমলগঞ্জের কাগজ পরিবার থেকে উপস্থিত অতিথি ও সাংবাদিকদের উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়া হয়। সব শেষে সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজের ১ পূর্তিতে কেক কাটা হয়।

 


বাজারে কাপড় পরিবর্তন করাতে এসে
মহিলাসহ ১ ক্রেতাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম;
ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ; উত্তেজনা

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ জনপদ শমশেরনগর বাজারের স্টেশন রোডে বিসমিল্লাহ্ ক্লথস্টোর থেকে কিনে নেয়া কাপড় পরিবর্তন করাতে এসে দোকানে কর্মরতদের হামলায় মহিলাসহ ১ ক্রেতা রক্তাক্ত হয়েছেন। এঘটনায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। ঘটনার পর অভিযুক্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে হামলাকারীরা পালিয়ে গেছে। আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে। ২ এপ্রিল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শমশেরনগর বাজারের বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোরে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শমশেরনগর বাজারের স্টেশন রোডে বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোর থেকে কিনে নেয়া কাপড় পরিবর্তন করানোর জন্য ইফতারের পূর্বে দোকানে আসেন মহিলা ক্রেতা। এসময় বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোরের মালিক আব্দুল মন্নানের ছেলে নোমান মিয়া বিক্রিত কাপড় পরিবর্তন করা যাবে না বলে মহিলা ক্রেতাকে সরিয়ে দেন। এসময় মহিলা ক্রেতা তাঁর মেয়েকে ফোনে বলেন, তুই কাপড় কিনেছিস, এটি ছোট হয়ে গেছে। এখন দোকানে এসে কাপড় পরিবর্তন করে নিয়ে যা। এরপর মহিলা ক্রেতা আবারও কাপড় পরিবর্তন করতে অনুরোধ করলে দোকানীরা ধাক্কা দিলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দোকানীরা ঝাড়– ও কাঠের রোল দিয়ে আঘাত করে খাতুনা বেগম (৬৫) ও নূরুল ইসলাম (৪২) কে রক্তাক্ত করে। অবস্থা দেখে ক্রেতারা প্রতিবাদ জানালে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠে। পরে পুলিশ ও বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দরা এসে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেন। এসময়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। আহতদের হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

এদিকে রাত সাড়ে ৮টায় দোকানের মালিক আব্দুল মান্নানকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের আশেপাশে পেয়ে উত্তেজিত জনতা হাতাহাতি শুরু করেন। খবর পেয়ে আহত মহিলার আত্মীয়স্বজন ও শতাধিক ক্রেতা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন। দোকান মালিক ও কর্মচারীদের পাল্টা হামলার চেষ্টা করছেন। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে। শমশেরনগর বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান, বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোরে এটি নতুন ঘটনা নয়। এরা আরো ক্রেতাদের সাথে খারাপ আচরন করেছে।

আহত মহিলা খাতুনা বেগমের ছেলে খসরু মিয়া বলেন, আমার আম্মা কাপড় পরিবর্তন করার জন্য নিয়ে আসেন। তাদের বিক্রি করা কাপড় ছোট হয়ে যাওয়ায় সেটি পরিবর্তন করতে চান। তারা কাপড় পরিবর্তন না করেই ঝাড়– ও কাঠের রোল দিয়ে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এটি কোন সময়েই মেনে নেয়া যায় না। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তিনি।

এব্যাপারে শমশেরনগর বাজার বণিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মো. আব্দুল হান্নান বলেন, আমরা অভিযুক্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে বলেছি। সুষ্ঠু সমাধান হওয়ার পর দোকান খোলা হবে।

শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ওসি (নি:) শামীম আকনজি বলেন, বিসমিল্লাহ ক্লথ স্টোর বন্ধ রয়েছে এবং অভিযুক্তরা পালিয়ে গেছে। রাতের মধ্যেই যদি সুষ্ঠু সমাধান না হয় তাহলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT