1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশ সফর করবেন। আমাদের গরিবীর মাঝেও গীর্জা সমৃদ্ধ আছে। বলেছেন বাংলাদেশের রোমান ক্যাথলিক যাজক - মুক্তকথা
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৫ পূর্বাহ্ন

পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশ সফর করবেন। আমাদের গরিবীর মাঝেও গীর্জা সমৃদ্ধ আছে। বলেছেন বাংলাদেশের রোমান ক্যাথলিক যাজক

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : সোমবার, ৩১ জুলাই, ২০১৭
  • ৪৭১ পড়া হয়েছে

লন্ডন: বাংলাদেশে খৃষ্টানদের সংখ্যা শতকরা হিসেবে মাত্র ০.৫ ভাগ। ১৭০ মিলিয়ন মানুষের মধ্যে অন্যুন শতকরা ৯০ভাগই মুসলমান। নিয়মানুগভাবে জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষকরে চাকুরী ক্ষেত্রে বৈষম্যের কারণে বাংলাদেশী খৃষ্টানদের মধ্যে দারীদ্র এখন সর্ববিস্তৃত। এতোসবের পরেও আগামী নভেম্বরের শেষে কিংবা ডিসেম্বরের শুরুতে পোপ ফ্রান্সিস আসলে দেখবেন এতো দারীদ্রের মাঝেও আমাদের গীর্জা কেমন সমৃদ্ধ। বলেছেন, বাংলাদেশের ক্যাথলিক ধর্মযাজক পেট্রিক ডি রোজারিও।
বিশ্বের প্রান্তিক খৃষ্টান জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মানোন্নয়নের জন্য পোপ ফ্রান্সিস-এর বিশ্বপ্রচার কাজের অংশ হিসেবে বাংলাদেশের এই প্রথম কোন ধর্মযাজক যিনি বলেছেন, আমার দেশের ক্যাথলিকগন মনানন্দে অপেক্ষা করছে মহান পোপের আগমনের। যেখানে পোপ একটি গীর্জা দেখবেন যা এতো দারীদ্রের মাঝেও কেমন সমৃদ্ধ।
আসন্ন ২৩ শে নভেম্বর থেকে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় মহামতি পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশ ও মায়ানমার সফর করবেন বলে বাংলাদেশের যাজক পেট্রিক ডি রোজারিও ক্যাথলিক মুখপত্র ‘ক্রুক্স’কে জানিয়েছেন। অবশ্য তিনি এখনও জানার অপেক্ষা করছেন যে মায়ানমার হবে পোপের এশিয়া শাখা সফরের দ্বিতীয় দেশ।
ডি রোজারিও বলেন, মায়ানমারেরও এই প্রথম যাজক চার্লস বো বলেছেন যে তারা মহাপবিত্র ফাদারকে মায়ানমারে আমন্ত্রণ করেছেন এবং শীঘ্রই তিনি আসবেন। অবশ্য তিনি এও বলেছেন যে পোপের সফরের বিষয়টি একটু জটিল কারণ এখানে দু’টি দেশ জড়িত। 
পোপ তাঁর নিজের দেশে সফর মূলতবী করার বিষয়ে যাজক ডি রোজারিও তার প্রবল আগ্রহের কথা প্রকাশ করেন। অত্যন্ত উৎসাহ আর আনন্দের পুলকে বাংলাদেশের গীর্জা পবিত্র পিতার আগমনের দিন গুনছে জানিয়ে বাংলাদেশের যাজক বলেন, পবিত্র পিতা আসবেন ধর্মীয় নেতা হিসেবে, তীর্থযাত্রী হিসেবে।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ একটি গরীবের জন্য গরীবদের গীর্জাদেশ। উদ্দীপনা, মনন বা আত্মিক দিক থেকে আমরা গরীব হলেও আমাদের এই দারীদ্রের মাঝেও একটা ধনাত্মক দিক আছে। ৭৩ বছর বয়স্ক এই ধর্মযাজক মানব মননের ধনাত্মক বিভিন্ন নমুনার কথা বলেন যা তিনি বিশ্বাস করেন। তিনি বলেন, আমাদের মূল্যবোধের একটি সমৃদ্ধ দিক আছে, আছে সংস্কৃতির সমৃদ্ধ দিক। আমাদের ধর্মীয় সহনশীলতার সৌন্দর্য্য, বহুধর্মীয় বৈঠকি আলাপের সমৃদ্ধ সৌজন্যের দিক এমনকি আমাদের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক অর্জনের বহু সমৃদ্ধ দিক রয়েছে।
বাংলাদেশে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খৃষ্টান এবং অন্যান্যদের মধ্যে আলাপ-আলোচনার এক ঐতিহ্যবাহী সমৃদ্ধ সংস্কৃতি রয়েছে জানান যাজক ডি রোজারিও।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT