1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
'স্পার্টা-৩' আর 'উরসা মেজর' একই জাহাজের দুই নাম, খরচ গুণতে হবে বাংলাদেশকে - মুক্তকথা
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৯:১৩ পূর্বাহ্ন

‘স্পার্টা-৩’ আর ‘উরসা মেজর’ একই জাহাজের দুই নাম, খরচ গুণতে হবে বাংলাদেশকে

মুক্তকথা ভাষ্যকার॥
  • প্রকাশকাল : বুধবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৬১৬ পড়া হয়েছে

জাহাজের একটির নাম ‘উরসা মেজর’। অপরটির নাম ‘স্পার্টা-৩’। দু’টোরই মালিক রুশ প্রজাতন্ত্র। যতটুকু অনুমিত হচ্ছে জাহাজ দু’টো নয় একটিই। আমেরিকার দাবী ‘স্পার্টা-৩’ এর উপর তাদের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। আর সে কারণেই নিষেধাজ্ঞাকে ডিঙ্গিয়ে যাবার জন্য রাশিয়া জাহাজটির নাম রং পাল্টিয়ে নতুন নাম দিয়েছে ‘উরসা মেজর’।

একটি জাহাজের উপর নিষেধাজ্ঞা। কিন্তু কেনো এ নিষেধাজ্ঞা, কবেকার এ নিষেধাজ্ঞা এসবের কিছুই লিখেনি কোন সংবাদ মাধ্যম। ‘সম্ভবতঃ’ শব্দটি ব্যবহার করে ‘ফ্লিটমুন’ ওয়েবসাইট লিখেছে “সম্ভবতঃ সিরিয়া যুদ্ধে সামরিক কাজে ব্যবহারের জন্য আমেরিকা এই ‘স্পার্টা-৩’ জাহাজটির উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল।” ফলে এর নাম ও রং পাল্টিয়ে রুশিয়া নতুন নাম দিয়েছে ‘উরসা মেজর’। অথচ বিশ্বব্যাপী সাধারণ মানুষ এসমুহ বিষয়ে জানার অধিকার রাখে। মানবাধিকারের এ সামান্য বিষয়টি কি আমাদের মতো সাধারণ মানুষকে লিখে দেখাতে হবে। কেনো সংবাদ মাধ্যম এবিষয়টি এড়িয়ে যায় আমাদের বোধগম্য নয়। আর শক্তিধর দেশের এ কেমন রাজনীতি।

বিশ্ব রাজনীতিতে ক্ষমতাধর দেশ হওয়া অতো সহজ বিষয় নয় সে তো আমরা সবেই বুঝি। শুধু অস্ত্র বানাতে পারলে কিংবা কিনে নিতে পারলেই ক্ষমতাধর রাষ্ট্র হওয়া যায় না। এটি কোন আইনী বিষয়ও নয় যে চাইলেই কেউ আইন চালিয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র হয়ে যাবে। আবার এখানে কোন ভোটেরও ব্যবস্থা নেই যে ভোটে পাশ করে ক্ষমতাধর রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়া যাবে। ক্ষমতার জন্য যেমন অস্ত্র আর অর্থ দু’য়েরই প্রয়োজন রয়েছে পাশাপাশি অস্ত্র আর অর্থ বানিয়ে নেয়ায় যে মেধার প্রয়োজন সে মেধাবী মানুষ ছাড়া একাকী ক্ষমতাধর হয়ে যাবার কোন রাস্তাই অতীত বিশ্বে যেমন ছিল না আধুনিক দুনিয়ায়ও নেই। শুধুমাত্র মেধার বিকাশ ঘটিয়ে একটি দেশ তার নিজের উচ্চমানসম্পন্ন রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড দিয়ে অর্জিত সমৃদ্ধির পথে গিয়েই এমন অবস্থানে পৌঁছানো সম্ভব। যেমন ভারত পেরেছে। বাংলাদেশ এখনও পৌঁছাতে পারেনি।

 

 

 

 

বাংলাদেশের রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য সরঞ্জাম বয়ে আনা রুশ জাহাজ ‘উরসা মেজর’এর ঘটনার দিকে খেয়াল করলে উপরের বক্তব্যের মিল খুঁজে পাওয়া যায়। ‘উরসা মেজর’ এই রুশ জাহাজ বাংলাদেশের মোংলা বন্দরে ভিড়তে না-পেরে এখন প্রতিবেশী ভারতের হলদিয়া বন্দরে মাল খালাস করতে গিয়েছে। হলদিয়ায় মাল খালাস করার পর ওই সব সরঞ্জাম সড়কপথে বাংলাদেশে পাঠানো হবে বলে স্থির হয়েছে। এমন তথ্যের উৎস বিবিসি। বিবিসি এরূপ একটি খবর প্রকাশ করেছে।  ‘উরসা মেজর’ নামে একটি রুশ জাহাজ গত ১৪ নভেম্বর রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গ থেকে রূপপুর নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্ল্যান্টের সরঞ্জাম নিয়ে বাংলাদেশের দিকে রওনা দিয়েছিল। এই রুশ জাহাজটির উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আছে বলে আমেরিকার আপত্তির কারণে বাংলাদেশ জাহাজটিকে দেশের বন্দরে ঢুকতে দেয়নি।

পক্ষান্তরে বিবিসি’এর খবর থেকে জানা গেলো, ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করে দিয়েছে মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা কোনও রুশ জাহাজ ভারতের কোনও বন্দরে ভিড়লে ভারতের তাতে কোনও সমস্যা নেই। গত ২৯ ডিসেম্বর দিল্লিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচী বিবিসি’কে বলেন, “এই রুশ জাহাজটির গতিবিধির ব্যাপারে আমার কাছে বিস্তারিত তথ্য নেই, তবে এটি যদি ভারতের কোনও বন্দরে ভিড়ে থাকে বা ভিড়তে আসে, তাহলে তাই!”  ভারতের কলকাতা-হলদিয়া পোর্ট ট্রাস্টের একটি সূত্র জানায় পরবর্তী আটচল্লিশ থেকে বাহাত্তর ঘন্টার মধ্যেই জাহাজটি হলদিয়া বন্দরে ভিড়তে পারবে বলে ধারণা করছে তারা।

শুধু কি তাই, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওই অরিন্দম বাগচী আরও বলেন, “আজকের এই টেকনিক্যাল দুনিয়ায় কোনটা নিষেধাজ্ঞা, কোনটা নয় তা নিয়েও বহু বিতর্ক আছে। কিন্তু আমাদের জ্বালানি নিরাপত্তার স্বার্থে পৃথিবীর যেখান থেকে আমরা সহজে তেল পাব সেখান থেকেই আনব, এটাই আমাদের নীতি। তেল ছাড়া অন্য পণ্যের ক্ষেত্রেও একই কথা খাটে।”

মূল কথা হচ্ছে বাংলাদেশ কি কোন পরীক্ষা দিল(?)। অন্যদিকে, হলদিয়া বন্দর থেকে পণ্য বহন করে বাংলাদেশে আনতে খরচ তো গুণতে হবে বাংলাদেশকেই!

 

 

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT