1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
ইতিমধ্যে ২২.৩৭ শতাংশ বনায়ন করা হয়েছে - মুক্তকথা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

ইতিমধ্যে ২২.৩৭ শতাংশ বনায়ন করা হয়েছে

বিশেষ প্রতিনিধি
  • প্রকাশকাল : মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০২৩
  • ৪২৬ পড়া হয়েছে

২০৩০ সাল পর্যন্ত পাহাড়ের কোন গাছ কাটা যাবে না

-পরিবেশমন্ত্রী

পরিবেশমন্ত্রী মো: শাহাব উদ্দিন বলেছেন, ২০২৫ সালে দেশে বন ২৪ শতাংশ বৃদ্ধি করা হবে। ২০৩০ সালে এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য ২৫ শতাংশ গাছ লাগানো হবে। ইতিমধ্যে বন বিভাগ ও সামাজিক বনায়ন একত্রিত করে ২২.৩৭ শতাংশ বনায়ন করা হয়েছে। আর মাত্র ১.৬৩ শতাংশ বাকী আমাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে। লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ২০৩০ সালে আমরা প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি অর্জনের লক্ষ্যে ২৫ শতাংশ বনায়ন করতে সক্ষম হব।

তিনি বলেন, গাছ আমাদের অক্সিজেন দেয়। বিগত করোনা কালে আমরা এই বিষয়টি সত্যিকার অর্থেই উপলব্ধি করতে পেরেছি। আমি নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছি। তখন আমরা অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পেরেছি। জলবায়ু পরিবর্তনের মোকাবেলায় আমাদের গাছ বেশি বেশি করে লাগানো দরকার। গাছ ছাড়া জলবায়ু মোকাবেলায় আমরা আমাদের দেশবাসীকে এবং জাতিকে রক্ষা করতে পারব না।

তিনি আরও বলেন, অপ্রয়োজনে কোন গাছ কাটা যাবে না। আমরা বার বার অনুরোধ করি এবং মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা আছে পাহাড়ের কোন গাছ ২০৩০ সাল পর্যন্ত কাটা যাবে না। সরকার বিক্রি করবে না। এই গাছগুলো রক্ষা করতে হবে ২০৩০ সাল পর্যন্ত। ২০৩০ সাল পর্যন্ত সরকারি বনায়নের কোন গাছ বিক্রি করা হবে না এবং কাটা হবে না। যদি কেহ অবৈধভাবে গাছ কেটে থাকে তাহলে আমাদের জনপ্রতিনিধিরা আছেন, সাংবাদিক ভাইয়েরা আছেন। আপনারা আমাদের ধরিয়ে দেবেন। তাদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

মঙ্গলবার(২৫ জুলাই) সকালে মৌলভীবাজার জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে বৃক্ষরোপণ অভিযান ও বৃক্ষমেলা এবং জাতীয় মৎস সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সকল কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক ড. উর্মি বিনতে সালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিছবাহুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায়, পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো: কামাল হোসেন।

মন্ত্রী এসময় মৎস বিভাগের সফলতা নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি বলেন, ২০০৬ সালে দেশে ২৯ লক্ষ মেট্টিক টন মাছ উৎপাদন হয়েছে। আর ২০২১-২২ সালে দেশে মাছ উৎপাদন হয়েছে ৪৭.৫৯ লক্ষ মেট্টিক টন। আমাদের হতাশ হবার কিছু নেই। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সর্বক্ষেত্রে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ ইলিশ উৎপাদনে বিশ্বে প্রথম স্থান অর্জন করেছে। পৃথিবীর মধ্যে বাংলাদেশ মুক্ত জলাশয়ে মাছ উৎপাদনে তৃতীয় স্থানে, তেলাপিয়া উৎপাদনে চতুর্থ স্থানে, বদ্ধ জলাশয় ও পুকুরে পঞ্চম স্থানে, সামুদ্রিক মাছ উৎপাদনে ৮ম স্থানে রয়েছে।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বন বিভাগ ও মৎস বিভাগের কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, বন ও মৎসের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, প্রিন্ট ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ ও বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT