1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
কাউয়ার জন্য রেস্তোঁরা না কি খদ্দের ডাকার জন্য রেস্তোঁরায় কাক রাখা হবে! - মুক্তকথা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

কাউয়ার জন্য রেস্তোঁরা না কি খদ্দের ডাকার জন্য রেস্তোঁরায় কাক রাখা হবে!

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : রবিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৭২৭ পড়া হয়েছে

লন্ডন: কাউয়ার জন্য রেস্তোঁরা। অর্থাৎ কাক পাখীর জন্য রেস্তোঁরা! এমন একটি রেস্তোঁরার প্রদর্শনী হয়ে গেলো বাঙ্গালী অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটস-এ গত রোববার।   ট্রেভর স্মিথ নামের ৬১ বছরের এক ব্যক্তির চিন্তা থেকে এমন একটি রেস্তোঁরা প্রদর্শনীর ব্যবস্থা হয়েছিল। ট্রেভর তার এ উদ্যোগে শরিক করে নেন বন্ধু চার্লি গিলমোরকে। তাদের ইচ্ছা মানুষের সঙ্গে কাকদের সম্পর্ক উন্নত করা আর এ জন্যই এই বিশেষ উদ্যোগ।

কাউয়া প্রেমি চার্লি গিলমোর

মজার এমন  খবর প্রকাশ করেছে লন্ডনের বড়-ছোট প্রায় সকল সংবাদপত্রই। কেউ লিখেছেন ওখানে গেলে দেখা যাবে একজন পেশাদার পাখী পালক তার পোষা কিছু কাউয়া নিয়ে আসবেন রেস্তোঁরায়।  তার একটি কাউয়ার নাম হলো ‘উম উম’। খদ্দেররা রেস্তোঁরায় কাক আকারের ‘স্ন্যাক্স’ খাবেন এবং কাউয়ার সাথে কিছু সময় কাটাবেন। তাদের বিষয়ে জানবেন। ‘ওয়াইল্ড লাইফ’ চ্যারিটি ‘রাভেন হেভেন’ একটি বাচ্চা কাক সহ ওই রেস্তোঁরায় মানুষ পাঠাবে। ওখানে পাঃ ৫.৯৯ থেকে পাঃ১১.২১ পর্যন্ত টিকেটির খরচ দিতে হবে। সপ্তাহে একদিন কাক রাখা হবে ওই রেস্তোঁরায়।
খুব রস দিয়ে আনন্দবাজার লিখেছে- ভাবছেন, কাকদের জন্য আবার ক্যাফে! বিশ্বের হলটা কী! আসলে মানুষের সঙ্গে কাকদের সম্পর্ক উন্নত করার এটি একটি বিশেষ উদ্যোগ। গোটাটাই ট্রেভর স্মিথ নামের ৬১ বছরের এক সাহেবের মস্তিষ্কপ্রসুত।
হঠাৎ এমন অদ্ভুত ইচ্ছে হল কেন তাঁর? স্মিথ জানান, ছোটবেলা থেকেই পাখির প্রতি একটা টান অনুভব করেন তিনি। গত বছরেই একটি দোয়েলের বাচ্চাকে উদ্ধার করেছিলেন। এখনও সেটি তাঁর সঙ্গেই থাকে। স্মিথ আরও জানান, কাকেদের সঙ্গে তাঁর এই সখ্য প্রায় ৬ বছর বয়স থেকেই। ‘ক্রো ক্যাফে’র আর এক উদ্যোক্তা চার্লি গিলমোর বলেন, ‘‘পক্ষীকুলের মধ্যে কাক অত্যন্ত সুন্দর এবং বুদ্ধিমান। এদের সম্পর্কে মানুষের ভুল ধারণা কাটাতে এবং যোগাযোগ বাড়াতে এই বিশেষ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’’
অভিনব এই ‘ক্রো ক্যাফে’ দেখার জন্য হাজারখানেক মানুষ হাজির হয়েছিলেন রবিবার। যাঁদের মধ্যে ছিলেন ব্রিটিশ গায়িকা, অভিনেত্রি বিলি পাইপারও। এই ক্যাফের অন্যতম আকর্ষণ অবশ্যই তিনটি কাক। যাদের নাম গিলবার্ট, চার্লি এবং এলিয়া। তাদের দেখে ক্যাফেতে আসা অসংখ্য মানুষ মুগ্ধ।
তবে, এই ‘ক্রো ক্যাফে’তে শুধু কাকের দেখাই মিলবে, তা নয়। এখানে মিলবে নানা স্বাদের বার্গার, প্যাটিস এবং সঙ্গে কফি। রয়েছে অন্যান্য পানীয়ের ব্যবস্থাও। ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এই ক্যাফে। ‘ক্রো ক্যাফে’তে আসা একাধিক মানুষজনের প্রশংসা আর অভিজ্ঞতার বর্ণনায় ভরে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT