1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
বৃটেনের নির্বাচনী ফলাফল এবং তারপর... - মুক্তকথা
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:২৯ অপরাহ্ন

বৃটেনের নির্বাচনী ফলাফল এবং তারপর…

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : শুক্রবার, ৯ জুন, ২০১৭
  • ২৯২ পড়া হয়েছে

লন্ডন: গতকাল ৮ জুন শেষ হয়ে গেলো বৃটেনের অনির্ধারিত জাতীয় নির্বাচন। নির্বাচনে রক্ষণশীল দল ৩১৮টি আসন পেয়ে জয়যুক্ত হয়েছে। ওপিটে শ্রমিক দল ২৬১টি আসনে নির্বাচিত হয়ে বৃহত্তর বিরুধীদলের পুরনো শিরোপা অক্ষুন্ন রাখতে পেরেছে। তাদের পরেই স্কটিশ ন্যাশনেলিস্ট পার্টি বা এসএনপি পেয়েছে ৩৫টি আসন। লিবারেল ডেমোক্র্যাট পার্টি পেয়েছে ১২টি আসন। ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিষ্ট পার্টি বা ডিইউপি পেয়েছে ১০টি আসন এবং অন্যান্যরা পেয়েছেন ১৩টি আসন। শেষের ১৩টি আসনের মাঝে সিন ফেইন পার্টি পেয়েছে ৭টি, ওয়েলস এর প্লেইড সিমরু ৪টি, গ্রীন ১টি এবং স্বতন্ত্র ১টি আসন।
রক্ষণশীল দল সর্বমোট ভোট পেয়েছে ১কোটি, ৩৬লাখ ৫০হাজার ৯১৮ ভোট। শ্রমিক দল পেয়েছে ১ কোটি ২৮লাখ ৫৮হাজার ৬৪৪ ভোট। এসএনপি পেয়েছে সর্বমোট ৯লাখ ৭৭হাজার ৫৬৮ ভোট। লিবারেল ডেমোক্রেট পেয়েছে ২৩লাখ ৬৭হাজার ৩৮টি ভোট। ডিইউপি পেয়েছে ২লাখ ৯২হাজার ৩১৬টি ভোট এবং প্লেইড সিমরু পেয়েছে সর্বমোট ১লাখ ৬৪হাজার৪৬৬ ভোট। গ্রীনপার্টি পেয়েছে ৫লাখ ২৪হাজার ৬০৪ ভোট এবং দলহীন স্বতন্ত্ররা পেয়েছে ২লাখ ৪৬হাজার ৬৬৭ ভোট। এ ছাড়াও এলায়েন্স, সোস্যাল ডেমোক্রেটিক এন্ড লেবার পার্টি, আলস্টার ইউনিয়নিস্ট পার্টি ও ইউকে ইনডিপেন্ডেন্স পার্টি সব মিলিয়ে পেয়েছে ৮লাখ ৩৭হাজার ১০৪ ভোট।

সরকার গঠন করতে সুযোগ না পেলেও শ্রমিকদল এ নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছে। আগের চেয়ে এ দফায় তারা ২৯টি আসন বেশী পেয়েছেন। আগের দফায় তাদের আসন সংখ্যা ছিল ২৩২টি। রক্ষণশীলরা মূলতঃ আসন হারিয়েছেন ১২টি। আগের দফায় তাদের আসন ছিল ৩৩০টি। এসএনপি ২১টি আসন হারিয়েছে। গেল নির্বাচনে তাদের আসন সংখ্যা ছিল ৫৬টি। লিবারেল ডেমোক্রেট ৪টি আসন বেশী পেয়েছে এ দফায়। ডেমোক্রেটিক ইউনিয়নিষ্ট পার্টি সংক্ষেপে ডিইউপি এবার ২টি আসন বেশী পেয়েছে।
প্রচলিত নিয়মানুসারে মহামহিম রাণী বেশী আসন নিয়ে বিজয়ী রক্ষণশীল দলকে আহ্বান জানাবেন সরকার গঠন করার জন্য। যদিও একটি ঝুলে থাকা সংসদ হবে এটি তবুও তেরেশা মে প্রস্তুত সরকার গঠনের জন্য। ডিইউপি বেশ একটু আগেই জানিয়েছে তারা রক্ষণশীলদের সাথে মিলে সরকার গঠনে রাজী আছে। তবে সে রাজী এমনি এমনি নয়। তাদের নিয়ে সরকার গঠনে রক্ষণশীলদের মূল্য দিতে হবে। ডিইউপি’র দাবী হতে পারে, ইউরোপীয়ান ইউনিয়নে থাকাকালীন যে ভাগ তাদের ছিল, তহবীলের সেই পরিমাণ তাদের পুরোটাই দিতে হবে। ইউনিয়নে থাকাকালীন কৃষি ভর্তুকী হিসেবে উত্তর আয়ারল্যান্ড বছরে ৩৫০ মিলিয়ন পাউন্ড পেয়ে আসছিল। এছাড়াও রয়েছে সম্প্রদায়গত উন্নয়ন ও ক্রস-বর্ডার প্রকল্প ব্যয়। এ খাতে ২০১৬ থেকে ২০২০ সাল অবদি প্রায় ৪০০মিলিয়ন পাউন্ড খরচের কথা রয়েছে। আরও ‘উত্তর আয়ারল্যান্ড বিনিয়োগ তহবীলে’র জন্যও ডিইউপি চাইতে পারে। এ অবস্থায় তাদের সাথে গিয়ে সরকার গঠনে হিসেব-নিকেশ রয়েছে।

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT