1. muktokotha@gmail.com : Harunur Rashid : Harunur Rashid
  2. isaque@hotmail.co.uk : Harun :
  3. harunurrashid@hotmail.com : Muktokotha :
রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ মহানবী হযরত মুহম্মদ(সঃ)এর ৪৩তম বংশধর! - মুক্তকথা
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন

রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ মহানবী হযরত মুহম্মদ(সঃ)এর ৪৩তম বংশধর!

সংবাদদাতা
  • প্রকাশকাল : বৃহস্পতিবার, ১২ এপ্রিল, ২০১৮
  • ৪৪৯ পড়া হয়েছে

লণ্ডন।। ব্রিটেনের রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ মহানবী হযরত মুহম্মদ(সঃ)এর ৪৩তম বংশধর। তিনি জর্ডান ও মরক্কোর বাদশার দূরসম্পর্কের বোন বলেও দাবি করা হয়েছে। গত শনিবার ৭ই এপ্রিল প্রকাশিত ‘দিটাইমসঅবইসরায়েল.কম’এ দাবী তুলে খবর প্রকাশ করেছে।
মরক্কোর সংবাদপত্র ‘আল-ওশবো’ গত মার্চ মাসে প্রকাশিত তাদের এক প্রতিবেদনে ব্রিটিশ রাজপরিবারের বংশানুক্রম ও পূর্বপুরুষদের ইতিহাস নিয়ে খুঁজাখুঁজিতে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে দাবী করেছে।
‘দৈনিক মেইল’এর উদৃতি দিয়ে ‘দিটাইমসঅবইসরায়েল.কম’ লিখেছে-“মরক্কোর সাংবাদিক আব্দেলহামিদ আল আওনি লিখেছেন-“এই সম্পর্ক আমাদের দু’রাজ্যের ও ধর্মের মধ্যে একটি সেতুবন্ধন রচনা করবে নিশ্চয়।”

এই বিষয়ে মিশরের সাবেক গ্র্যান্ড মুফতি আলি গোমা বলেন, ইমান হাসানের সূত্র ধরে মুহম্মদ(সঃ)এর বংশলত রাণী এলিজাবেথ পর্যন্ত আসার বিষয়টি ঐতিহাসিক ও জিনগত সত্যি। তিনি আরো বলেন, জর্ডানের বর্তমান রাজা দ্বিতীয় আবদুল্লাহ এবং মরক্কোর রাজা ষষ্ঠ মুহম্মদ রাণীর দূরসম্পর্কের ভাই।
প্রসঙ্গত সংবাদপত্রগুলোর এসব দাবী কিন্তু নতুন কিছু নয়। এর আগে ১৯৮৬ সালে সর্বপ্রথম ব্রিটেনের রাজপরিবারের পূর্বপুরুষদের জিন নিয়ে কাজ করা প্রকাশনা সংস্থা ‘বুর্খে পিরেজ’ সর্বপ্রথম এই সম্পর্কের কথা প্রকাশ করেছিল। সম্প্রতি মরক্কোর ওই গণমাধ্যম জানায়, মধ্যযুগীয় ম্পেনে মুর যুগের জিনতত্ত্ব বুর্খে প্রকাশনার দাবিকেই সমর্থন করে।
এতে দেখা যায়, রাণী এলিজাবেথ তৎকালিন স্পেনের সেভেলির মুসলিম শাসকের বংশধর। উমাইয়া শাসনামলে স্পেনে মুরদের আক্রমণের পর রাজা আবু আল কাসিম মোহাম্মদ ইবন আবদ স্পেনের শহর সেভেলিতে শাসক(১০২৩ খ্রিষ্টাব্দ) হিসেবে অধিষ্ঠিত হন। আবু আল কাসিম ছিলেন মুহম্মদ(সঃ)এর নাতি ইমাম হাসান বিন আলির ১১তম বংশধর। ১৩৭৫ সালে ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করা রিচার্ড অব কেনিসবুর্গ(আর্ল অব কেমব্রিজ ‘তৃতীয়’) ছিলেন আবু আল কাসিমের ১২তম বংশধর। তার নাতি চতুর্থ এডওয়ার্ড ছিলেন ইংল্যান্ডের রাজা। এডওয়ার্ডের অষ্টম বংশধর ছিলেন গ্রেট ব্রিটেনের রাজা প্রথম জর্জ। আর প্রথম জর্জের দশম উত্তরসূরীই রাণী এলিজাবেথ।
ইকোনমিষ্ট লিখেছে, সম্পর্কের বহু সূত্র সুদীর্ঘকালব্যাপী ‘জায়দা’ নামের এক মুসলিম রাজকন্যাকে নিয়ে ঘোরপাক খেয়ে আসছে। এগারো শতাব্দির মুসলিম স্পেনে সেভিলদের উপর এক আক্রমন থেকে পালিয়ে কাস্তিলের ৬ষ্ট আলফনসো’এ আশ্রয় নিয়েছিলেন। এখানে তিনি খৃষ্ট ধর্ম গ্রহন করে নাম ধারণ করেন ‘ইসাবেলা’।
এই ‘জায়দা’র মূল কোথায়? এ নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে। কেউ কেউ বলেছেন হযরত মোহাম্মদের বংশধর এক মদ্যপ খলিফা মোয়াতামিম বিন আব্বাদ এর কন্যা। তথ্য সূত্রঃ টাইমস অব ইসরায়েল ও দি মেইল

এ জাতীয় সংবাদ

তারকা বিনোদন ২ গীতাঞ্জলী মিশ্র

বাংলা দেশের পাখী

বাংগালী জীবন ও মূল ধারার সংস্কৃতি

আসছে কিছু দেখতে থাকুন

© All rights reserved © 2021 muktokotha
Customized BY KINE IT